সিরাজগঞ্জে গৃহবধু হত্যা মামলা, স্বামীসহ ৪ ভাইয়ের ফাঁসি

January 22, 2019
By

সিরাজগঞ্জ বার্তা.কম ডেস্ক: যৌতুকের দাবিতে ১৮ বছর আগে সিরাজগঞ্জ শহরের আলোচিত গৃহবধু হত্যা মামলার রায়ে স্বামীসহ ৪ ভাইকে ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি এক লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।
মঙ্গলবার(২২ জানুয়ারি’২০১৯) দুপুরে আসামীদের অনুপস্থিতিতে সিরাজগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক ফজলে খোদা মো. নাজির এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, শহরের মুজিব সড়কের তৎকালীণ শীলা জুয়েলার্সের মালিক সতীশ চন্দ্র রায়ের ছেলে ও গৃহবধুর স্বামী সুবীর কুমার রায়, তার ভাই ডা. সুশীল কুমার রায়, সুনীল কুমার রায় ও মনোরঞ্জন কুমার রায়।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৯ সালে সতীশ চন্দ্র রায়ের ৪র্থ ছেলে সুবীর কুমার রায়ের সাথে টাঙ্গাইল শহরের গোপীনাথ বিশ্বাসের মেয়ে সুমী রাণীর বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ৫ লাখ টাকা যৌতুকের মধ্যে আড়াই লাখ টাকা পরিশোধ করা হয়। বাকি টাকার জন্য সুমী রাণীকে বিভিন্ন সময় নির্যাতন করা হতো।
২০০১ সালের ১২ই জানুয়ারি সন্ধ্যায় সুমী রাণীকে মারধরসহ গলা টিপে হত্যা করার ঘটনা ঘটে। পরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্বহত্যা করেছে বলে মনোরঞ্জন রায় থানায় সাধারণ ডায়রি করেন।

ময়নাতদন্তে সুমী রাণীকে হত্যা করা হয়েছে মর্মে প্রতিবেদন পাওয়ায় পুলিশ বাদী হয়ে ২০০১ সালের ১৫ই জানুয়ারি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপর গোপীনাথ বিশ্বাসও তার মেয়ে জামাই ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর থেকে সুবীর কুমার রায় ও তার ৩ ভাই পলাতক।
আসামীদের পক্ষে আদালতে রাষ্ট্র নিযুক্ত আইনজীবী মামলা পরিচালনা করেন।

৫৫৫৫৫৫৫৫৫৫৫
সিরাজগঞ্জ বার্তা.কম/২২ জানুয়ারি ২০১৯



প্রিয় সুহৃদ, সিরাজগঞ্জ বার্তা ডট কম এর পক্ষ থেকে সবাইকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা। যমুনা বিধৌত সিরাজগঞ্জকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে আমাদের এই ছোট্ট প্রয়াস। সিরাজগঞ্জের প্রথম অনলাইন পত্রিকা হিসাবে আমরা সব সময়ই চেষ্টা করবো দেশ-বিদেশের পাঠককে এলাকার গুরুত্বপূর্ণ সংবাদগুলো দ্রুত পৌঁছে দিতে। সবার সহযোগিতায় আমরা এগিয়ে যেতে চাই যোজন যোজন দূর। -প্রধান সম্পাদক