সিরাজগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে অপহৃত যুবক উদ্ধার: ইয়াবাসহ আটক ৩

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট:

সিরাজগঞ্জে র‌্যাব-১২ এর পৃথক অভিযানে এক অপহৃত যুবককে উদ্ধার, অপহরণকারী আটক এবং ১শ’ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ২ ইয়াবা ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত অপহৃত যুবকের রনাম মজনু মিয়া (৩০)। সে রাজশাহী জেলার মতিয়ার উপজেলার টাংগন গ্রামের মনসুর আলীর  ছেলে।  গ্রেফতারকৃত অপহরণকারী মোহাম্মাদ শামীম (৪০) সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার দত্তবাড়ি গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে।
অপরদিকে আটককৃত ইয়াবা ব্যবসায়ী সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার চর সারটিয়া গ্রামের মৃত গোলাম নবীর ছেলে জিলহাজ হোসেন বাবু (৩৫) ও  বেলকুচি উপজেলার মাসাইল গ্রামের শামসুল আলমের ছেলে নুরনবী (২২)।

র‌্যাব-১২ ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার মোস্তাাফিজুর রহমান জানান, অপহৃত মজনু গাজীপুর জেলার চৌরাস্তা টেলিপাড়ায় পরিবার নিয়ে বসবাস করে। সেখানে তিনি রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। একটি মাদক মামলায় মজনু ফেনসিডিলসহ ধরা পড়ে সিরাজগঞ্জ জেলা কারাগারে আটক থাকা অবস্থায় শামীমের সাথে তার পরিচয় হয়। জেল থেকে বের হবার পর গত মঙ্গলবার শামীম মোবাইলে মজনুকে চাকরি  দেওয়ার কথা বলে ডেকে আনে। মজনু গত বুধবার রাত সাড়ে ১০টায় সিরাজগঞ্জ শহরের মাদারবক্স হোটেলের ২০৪ নং কক্ষে অবস্থান নেয়।
শুক্রবার সকালে শামীম এবং আলীম এসে মজনুর কাছে ১ লাখ টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে মজনুকে হত্যার হুমকি দেয়। তারা মজনুকে রুমের মধ্যে আটকে রাখে। এ সময় মজনু  মোবাইল ফোনে স্ত্রী সাগরীর কাছে বিষয়টি জানালে দুপুরে  সে র‌্যাবকে বিষয়টি জানায়।
পরে র‌্যাবের সিরাজগঞ্জ ক্যাম্পের একটি দল তার নেতৃত্বে ওই হোটেলে অভিযান চালিয়ে অপহৃত যুবককে উদ্ধার ও  ওই অপহরণকারীকে আটক করে। অপর অপহরণকারী চককোবদাসপাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে আব্দুল আলীম (৩৫) পলাতক রয়েছে।

অপরদিকে র‌্যাব-১২’র একটি দল সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার চর সারটিয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে ১শ’ ইয়াবাসহ ২ ইয়াবা ব্যবসায়ীকে আটক করে। উভয় ঘটনায় সিরাজগঞ্জ সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ বার্তা@ ১৫ অক্টোবর’ ২০১১

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.