এলেঙ্গা-হাটিকুমরুল-রংপুর সড়ক চার‌লে‌ন বানাতে চু‌ক্তি সই

সিনিয়র সংবাদদাতা
ঢাকা: সাসেক সড়ক সংযোগ প্রকল্প-২ এর আওতায় এলেঙ্গা-হাটিকুমরুল-রংপুর মহাসড়ক চারলেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পে সড়ক ও জনপথ বিভাগের সঙ্গে চুক্তি সই করেছে নির্মাণ প্রতিষ্ঠান হেগো (চায়না) ও মীর আক্তার (বাংলাদেশ)। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
বৃহস্পতিবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে এ চুক্তি সই হয়।
এতে সই করেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের পক্ষে প্রকল্প পরিচালক ও সওজের প্রধান প্রকৌশলী শাহরিয়ার হোসেন এবং নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান চীনা প্রতিষ্ঠান হেগোর লি শাও মি।
২০২১ সালের মধ্যে টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা থেকে রংপুর জেলা সদর পর্যন্ত প্রায় ১৯০ কিলোমিটার এ মহাসড়কটি চার লেনে উন্নীত করা হবে।

প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ১১৮, ৯৯০ দশমিক ১২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এর মধ্যে সরকার অর্থায়ন করবে ২৫, ৪৪০ দশমিক ৪৮ মার্কিন ডলার আর এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংক দেবে ৯৩, ৫৪৯ দশমিক ৬৪ মার্কিন ডলার।
১৯০দশমিক ৪০ কিলোমিটার দীর্ঘ এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে রাজধানী ঢাকার সঙ্গে উত্তরাঞ্চলের ১৬টি জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন ঘটবে বলে আশা করা হচ্ছে।
সরকার ও এডিবির অর্থায়নে সড়ক ও জনপথ অধিদফতবের বাস্তবায়নাধীন ‘সাসেক সড়ক সংযোগ প্রকল্পের আওতায় এলেঙ্গা-হাটিকুমরুল-রংপুর মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ’ শীর্ষক কাজের প্যাকেজ এমপি-১-এর লট ডব্লিউপি-০৬ এ ব্যয় হবে ১১৮, ৯৯০ দশমিক ১৩ মার্কিন ডলার।
প্রকল্পটি যৌথভাবে বাস্তবায়ন করবে হেগো (চায়না) ও মীর আক্তার হোসেন লিমিটেড (বাংলাদেশ) জেবি। প্রকল্পের মেয়াদ  ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর থেকে ২০২১ পর্যন্ত।
২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে একনেকে অনুোদন হওয়া এ প্রকল্পের আওতায় বিদ্যমান মহাসড়ক চার লেনে উন্নীত করার পাশাপাশি তিনটি উড়ালসড়ক (ফ্লাইওভার), ৩২টি ছোট-বড় সেতু, একটি রেলপথ ওভারপাস, ১৬১টি কালভার্ট, ৩৯টি আন্ডারপাস, ১১টি পদচারী-সেতু নির্মাণ করা হবে বলে জানা গেছে। এ জন্য প্রায় ১৯৯ একর জমি অধিগ্রহণ করতে হয়েছে। এ ছাড়া ধীরগতির যানবাহনের জন্য পৃথক লেন থাকবে।

১১১
সিরাজগঞ্জ বার্তা.কম/২৪ জানুয়ারি’২০১৯

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.